ভোলা জেলা ও দায়রা জজ’র বদলির আদেশ,পুনর্বহালের গণদাবি।।

রোকনউদ্দিন হাওলাদারঃ

ভোলার বিদায়ী জেলা ও দায়রা জজ ড. এ বি এম মাহামুদুল হকের বদলির আদেশ বাতিল ও তাকে পুনর্বহালের দাবিতে ভোলায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে ভোলা জেলা আদালতের সামনে বাংলাদেশ বিচার বিভাগীয় কর্মচারী অ্যাসোসিয়েশন ভোলা জেলা শাখা ও সাধারণ জনগণের ব্যানারে এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বক্তব্য রাখেন সেরেস্তাদার আকরাম আলী, বাংলাদেশ বিচার বিভাগীয় কর্মচারি অ্যাসোসিয়েশন ভোলা জেলা শাখার আহ্বায়ক মীর ইকবাল, সদস্যসচিব সাইফুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক কর্মী আবিদুল আলম। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মো. আকতার হোসেন।

বক্তারা বলেন, ভোলা জেলা ও দায়রা জজ এ বি এম মাহামুদুল হক সৎ ও ন্যায়পরায়ণ বিচারক। তিনি ভোলায় যোগদানের পর থেকে সততা, দক্ষতা, ও ন্যায়পরায়ণতার সঙ্গে বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। তিনি বিচারে সুলভ মনোভাব প্রয়োগ, সঠিক ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিচারক আইনজীবী, আদালতের কর্মচারী ও জনগণের আস্তা অর্জন করেছেন।

এ বি এম মাহামুদুল হক বিচারব্যবস্থা ও আদালতের পরিবেশের ব্যাপক উন্নয়নমূলক সংস্কার করেন। তার সময়ে জরাজীর্ণ আদালত চত্বরকে অত্যাধুনিক ও জনবান্ধব হিসেবে তৈরি করেন। তিনি আদালতের পুকুরঘাট সংস্কার, খেলার মাঠসহ ক্রীড়া কমপ্লেক্স, গাড়ি রাখার গ্যারেজ, অত্যাধুনিক কনফারেন্স রুম, দৃষ্টিনন্দন জজেজ কোয়ার্টার নির্মাণসহ অনেক উন্নয়নমূলক কাজ করেন।

দীর্ঘ ছয় বছর ধরে ঝুলে থাকা কর্মচারী নিয়োগ কার্যক্রম দক্ষতার সঙ্গে সম্পন্ন করে আইনসংগত ও ন্যায়সংগতভাবে নিয়োগ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেন। অথচ একটি মহল তার ইমেজকে ক্ষুণ্ন করার জন্য অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে দাবি করেন তারা।
এ বি এম মাহামুদুল হকের অনাকাঙ্ক্ষিত বদলির আদেশ বাতিল করে ভোলার জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে পুনর্বহালের দাবি জানান তারা।

উল্লেখ্য, কোনো ধরনের বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ১১ জনকে বিভিন্ন পদে নিয়োগ দেওয়ার সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে ভোলা জেলা ও দায়রা জজ এ বি এম মাহমুদুল হককে বদলি করা হয়েছে বলে জানা যায়।

ফেসবুকে লাইক দিন