আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ শনিবার, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২৪ ইং, ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরী

আলোচনার পর আকরামের পদত্যাগের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত

ভোলার খবর ডেস্ক:
ক্রিকেট অপারেসন্স ছাড়া অন্য যেকোন জায়গায় কাজ করতে আগ্রহী আকরাম খান। তবে এখন কোন সিদ্বান্ত নয়, আলোচনা শেষেই জানানো হবে পরবর্তি সিদ্বান্ত জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি। এদিকে নির্বাহী কমিটি নিয়ে আলোচনা হবে বুধবার। কোন পরিবর্তন ছাড়াই ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে ঘোষনা করা হবে কমিটি, তবে রিশাফলড হবে বলেও জানান বিসিবি প্রধান।এদিকে নির্বাহী কমিটি নিয়ে আলোচনা হবে বুধবার। কোন পরিবর্তন ছাড়াই ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে ঘোষনা করা হবে কমিটি, তবে রিশাফলড হবে বলেও জানান বিসিবি প্রধান।আকরাম খানের জায়গায় অন্য কেউ কাজ করতে আগ্রহী থাকলে সরাসরি যোগাযোগ করার কথাও জানান নাজমুল হাসান পাপন। ৮ বছর বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালনের পর, এই পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত আকরাম খানের। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সাথে আলোচনার পরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবেন সাবেক অধিনায়ক। এমন খবরের পর গুঞ্জন উঠেছে পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে বিসিবি পরিচালনা পর্ষদে। এই ইস্যুর সাথে আসন্ন বিপিএলের রূপরেখা নির্ধারণে বোর্ড পরিচালকদের সাথে বৈঠকে বসেছে সভাপতি। এর আগে ক্রিকেট অপারেশন্স ছেড়ে দিচ্ছেন আকরাম, সোমবার ফেসবুক স্ট্যাটাসে সহধর্মিনী সাবিনা আকরাম এমনটাই জানানোর পর থেকেই নাটকীয়তার শুরু। যদিও পরবর্তীতে সেই স্ট্যাটাস সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। ঘটনার কারণ জানতে দিনভর আকরামের বাড়ির সামনে গণমাধ্যম কর্মীদের ভীড়। ফোনে বারবার যোগাযোগের পর সন্ধ্যায় গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি। ২০১৪ সালে নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বে নির্বাচিত কমিটিতে প্রথমবার ক্রিকেট অপারেশন্সের দায়িত্ব পান আকরাম। পরের বছর অক্টোবরে নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের কাছে পদ হারান। এরপর ২০১৬ এর ফেব্রুয়ারিতে আবারও বিসিবির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ফেরেন আকরাম। সে কারণে বিসিবি বসের সাথে কথা বলে দিতে চান চূড়ান্ত ঘোষণা। ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান জানান, লম্বা সময় বিসিবির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন। চাইলেই কি সরে যাওয়া সম্ভব? বিসিবি সভাপতি থেকে যেতে বলতে কি হবে সেটাই এখন বড় প্রশ্ন।

ফেসবুকে লাইক দিন