সর্বশেষঃ

ভোলায় কলেজ ছাত্র সহ বাবাকে পেটালেন অধ্যক্ষ

 

 

স্টাফ রিপোর্টার।
ভোলায় রেবা রহমান ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ইমরান হোসেন কলেজ পড়ুয়া ছাত্র ইমরান হোসেন(১৬) ও তার বাবা আব্দুস সাত্তার(৪৫) কে অবরুদ্ধ করে মারধরের অভিযোগ ওঠে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুরো কলেজ জুড়ে শুরু হয় সমালোচনার ঝড়।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় সদর উপজেলার ঘুংগারহাট বাজার সংলগ্ন রেবা রহমান ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ইমরান হোসেন এর সাথে ম্যানেজিং কমিটি ফরম জমা নিয়ে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে অধ্যক্ষ ইমরানসহ কলেজের আরও দুই শিক্ষক মিলে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ করেন আব্দুস সাত্তার।

এ বিষয়ে অভিযোগকারী সাত্তার বলেন, রেবা রহমান ডিগ্রী কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য পদে নির্বাচনি মনোনয়ন ফরম জমা দিতে গেলে প্রস্তাভ কারি পছন্দমত না হওয়ায় অপারগতা প্রকাশ করেন অধ্যক্ষ ইমরান হোসেন।

ফরম জমা নিয়ে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হলে এক পর্যায়ে আমার উপর চড়াও হয়ে অধ্যক্ষ ইমরান হোসেন সহ আরো দুই- শিক্ষক মিলে আমাকে ও এই কলেজে অধ্যায়ন করা আমার ছেলেকে বেধড়ক পিটিয়েছে। এর পর

প্রায়ই পাঁচ ঘন্টার অব্দি কলেজে আটকিয়ে রাখা হয়েছে। পক্ষান্তরে সাংবাদিকদের উপস্থিতিত টের পেয়ে বিকাল ৪টায় অবরুদ্ধ হইতে মুক্তি পাই।

অভিযোগ অস্বীকার করে অধ্যক্ষ ইমরান হোসেন বলেন, অভিভাবক আব্দুস সাত্তার যে বিষয়টি অভিযোগ করেছেন তার সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)এনায়েত হোসেন বলেন, অভিযোগ পেলে ঘটনার তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন