মনপুরায় গণমানুষের সংবর্ধনা পেলেন এমপি জ্যাকব

 

 

 

ভোলার খবর ডেস্ক :

ভোলার মনপুরা দ্বীপবাসিকে রক্ষায় টেকসই বাঁধ নির্মাণের জন্য ১ হাজার ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা বরাদ্দ অনুমোদন দেয়ার খবরে এলাকার মানুষের মধ্যে আনন্দ উচ্ছ্বাস বিরাজ করছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে ডাক-ঢোল, বাধ্য বাজিয়ে, মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানোর পাশাপাশি স্থানীয় সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবকে অভিনন্দন জানান হাজার হাজার মনপুরাবাসী।

এ সময় মনপুরা সরকারি হাজির হাট মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে গণসংবর্ধনার সভাস্থলে দুপুর থেকে লোকে লোকারণ্য হয়ে। বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তির পক্ষ থেকে সমগ্র উপজেলা জুড়ে টানানো হয়েছে ব্যানার ফেস্টুন। সন্ধ্যার আগে ফুল ও ক্রেষ্ট দিয়ে ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবকে স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সর্বস্তরের জনগনের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা জানানো হয়।

এ সময় গণসংবর্ধনায় এলাকার মানুষ নিরাপদ নৌ-চলাচলের জন্য ফেরি চালু করা ও নিরবিচ্ছিন্ন গ্রিড বিদ্যুতের দাবি জানান। এদিকে আয়োজন করা হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।

সন্ধ্যার পর সংগীত পরিবেশন করছেন মানিকগঞ্জ ২ আসনের সংসদ সদস্য ও শিল্পী মমতাজ বেগমসহ দেশ সেরা এক ঝাঁক তরুণ শিল্পী।

মনপুরা আওয়ামী লীগ সম্পাদক জাকির হোসেনের সঞ্চালনায় ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেলিনা আকতারের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব বলেন, স্বাধীনতার ঐতিহাসিক মাস মার্চ মাস উল্লেখ করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। একই সঙ্গে মনপুরাকে রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী দৃঢ় সিদ্ধান্ত ও বিপুল পরিমান বরাদ্দ দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এ সময় তিনি মনপুরা ও চরফ্যাশনের উন্নয়নের চিত্রও তুলে ধরেন। মনপুরাবাসীর এমন আয়োজনের জন্য তাদের প্রতি চির ঋনী থাকার কথাও জানান এমপি জ্যাকব।

এই সময় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামিম মিঞা, ওসি সাইদ আহমেদ, আ’লীগ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন, আ’লীগের সহ-সভাপতি দীপক চৌধুরী, আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান অলি উল্লাহ কাজল, ইউপি চেয়ারম্যান আমানত উল্লা আলমগীর, ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন হাওলাদার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুল লতিফ ভুইয়া, সরকারি ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক ও শ্রমিক লীগ সভাপতি আবুল হোসেন আবু, আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বায়জিদ কামাল, আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক মোশারেফ হোসেন মজনু ফরাজী, আমিনুল ইসলাম ফিরোজ, যুবলীগ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন আযম, ছাত্রলীগ সভাপতি শামসুদ্দিন সাগর, সম্পাদক সুমন ফরাজী প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মনপুরা প্রেসক্লাবের সদস্য বৃন্দ, মনপুরা থানা পুলিশের সদস্যবৃন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যবৃন্দ ও সর্বস্তরের জনগণ।

মনপুরার জন্য বরাদ্দকৃত ১ হাজার ১৫ কোটি ৭০ লক্ষ টাকায় নির্মাণ হবে ৫২ কিলোমিটার টেকসই বাধ, ৩৭ কিলোমিটার নদীর তীর সংরক্ষণ, ১০টি স্লুইস গেইট, ৭টি পানি নিস্কাশন আউটলেট। এলাকাবাসীর দাবি এক কাজ যেন এ বছর বর্ষার আগে শুরু হয়। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী হাসানুজ্জামান জানান, টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ করে কাজ শুরু করতে আরো এক বছর সময় লাগবে। তবে তারা দ্রুত কাজ শুরু করতে চেস্টা করছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন