মেঘনায় লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার ডুবি, নিখোঁজ ৩

ভোলার দৌলতখানে মেঘনা নদীতে তাসরিফ-২ লঞ্চের ধাক্কায় মাছ ধরার একটি ট্রলার ডুবে গেছে। এ ঘটনায় তিন জেলে এখনো নিখোঁজ রয়েছে। বুধবার রাত ২টার দিকে উপজেলার চৌকিঘাট সংলগ্ন মেঘনা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ জেলেরা হলেন- এরশাদ (৩৫), মমিন (২৫), আকবর (৩৫)। তারা সবাই চরপাতা ইউনিয়নের বাসিন্দা। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ট্রলারে থাকা অপর  তিন জেলে।

তারা হলেন- সোহেল (২০), জামাল (৩৫), ইদ্রিস (৫০)। তারা দৌলতখান ও ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

ট্রলারের মালিক আব্দুর রহমান জানান, বুধবার রাত ২টার দিকে ৯ জন জেলে নিয়ে ট্রলারটি মেঘনা নদীতে চৌকিঘাট এলাকায় জাল ফেলেন। এ সময় তাসরিফ-২ লঞ্চটি দ্রুতগতিতে ট্রলারটিকে ধাক্কা দিলে ট্রলারটি ভেঙে যায়। এ সময় নদীতে তলিয়ে যাওয়া ছয় জেলে সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও ৩ জেলে এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

খবর পেয়ে কোস্টগার্ড দক্ষিণ জোনে ও দৌলতখান ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা যৌথভাবে নিখোঁজ জেলেদের সন্ধানে মেঘনার বিভিন্ন পয়েন্টে উদ্ধার কাজ পরিচালানা করেন।

এদিকে নিখোঁজদের খোঁজে রাতেই মেঘনার তীরে ভিড় করেছেন স্বজনরা। তাসরিফ-২ লঞ্চ কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার সত্যতা অস্বীকার করেছেন।

দৌলতখান ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মিজানুর রহমান জানান, ট্রলারটি উদ্ধার করা হয়েছে। নদীতে নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধার কাজ চলমান রয়েছে।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলার রহমান জানান, এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন