চরফ্যাসনে সাংবাদিক হাসান লিটনের ওপর সন্ত্রাসী হামলা

চরফ্যাসন প্রতিনিধিঃ

চরফ্যাসনে প্রশাসনের অভিযানে বন্ধ করে দেয়া করাতকল ফের চালুর সংবাদ প্রকাশের জের ধরে বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন চরফ্যাসন উপজেলা শাখার সদস্য ও সময়য়ের বার্তা পত্রিকার  হাসান লিটনের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।বুধবার রাতে দক্ষিণ আইচা বাজারের কিশোর গ্যাংয়ের মুল হোতা রায়হান মুন্না এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে বলে আহত  হাসান লিটন জানিয়েছেন। ঘটনার পরই সহকর্মীরা হাসান লিটনকে উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করান।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাংবাদিক হাসান লিটন জানান, সম্প্রতি দক্ষিণ আইচায় কিশোরগ্যাং  গ্রুপের মূল হোতা সন্ত্রাসী রায়হান মুন্নার দুলাভাই সানাউল্লাহ রেজভীর মালিকানধীন একটি অবৈধ করাতকল ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে বন্ধ করে দেয়। বন বিভাগ ও প্রশাসনকে ম্যানেজ করে সম্প্রতি ফের ওই করাতকল চালু করে দেন ।  সাংবাদিক হাসান লিটন এনিয়ে একাধিক সংবাদ  করেন। এতে ক্ষিপ্ত হন করাতকল মালিক  সানাউল্লাহ রেজভী ও তার শ্যালক রায়হান মুন্না। বুধবার রাতে  পেশাগত দ্বায়িত্ব পালন শেষে দক্ষিণ আইচা বাজারে সহকর্মীদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিলেন হাসান লিটন। এসময় কিশোর গ্যাং গ্রুপের মূল হোতা সন্ত্রাসী রায়হান মুন্না তার স্ঙ্গিদের নিয়ে হাসান লিটনের ওপর অর্তকিত হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে। খবর পেয়ে সহকর্মী ও স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সাংবাদিক হাসান লিটনের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায়  বাংলাদেশ অনলাইন জার্নালিষ্ট অ্যাসোসিয়েশন ভোলা জেলা শাখার সভাপতি খলিল উদ্দিন ফরিদ ও সাধারন সম্পাদক ছোটন সাহা এবং চরফ্যাসন উপজেলা শাখার সভাপতি নোমান সিকদার ও সাধারন সম্পাদক মিজান নয়ন তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলাকে সংবাদ পত্রের কন্ঠ রোধের সামিল উল্লেখ করে দ্রুত অভিযুক্ত রাহয়ান মুন্নাকে আইনের আওয়াতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান ।
অভিযুক্ত রায়হান মুন্না অভিযোগের বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

দক্ষিণ আইচা থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন