সর্বশেষঃ

ভোলায় কিশোর গ্যাংদের উৎপাত,অভিভাবকদের সচেতনতা প্রয়োজন !!

খোকন উদ্দিন হাওলাদারঃ- ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার উদয়পুর রাস্তার মাথা থেকে শুরু করে নতুন হাকিমুউদ্দিন বাজারের আশেপাশে এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সামনে মেয়েদের সাথে আচার আচরণ খারাপ করে এমন অভিযোগ শিক্ষার্থীদের অভিভাবকের তাদের গার্ডিয়ানের কাছে বিচার দিয়ে থামানো যাচ্ছেনা। এই নিয়ে পুরো এলাকাবাসী উদ্বিগ্ন।সাম্প্রতিক সময়ে কিশোর গ্যাং এর উৎপাত বেড়েছে। কিশোর অপরাধীরা ‘গ্যাং’ বা গ্রুপ সৃষ্টি করে বিভিন্ন অপরাধ করে বেড়াচ্ছে। জড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে। এই কিশোররা সমাজের মধ্যে নিজেদের মতো করে নতুন এক সমাজ গড়ে তুলছে। ওই সমাজের সংস্কৃতি, ভাষা, বিশ্বাস, মূল্যবোধ, আচার-আচরণ সবকিছু আলাদা।যার ফলে সংঘটিত হচ্ছে নানাবিধ অপরাধ। আধিপত্য বিস্তার, ছিনতাই, চুরি, পাড়া বা মহল্লার রাস্তায় মোটরসাইকেলের ভয়ংকর মহড়া, মাদক গাঁজা সেবন করছে। এরা সারারাত মোবাইলে আসক্ত থাকে দিনের অনেক সময় ধরে ঘুমায়। এদের ব্যাপারে তাদের অভিভাবকরা সোচ্চার না হলে তারা খারাপের দিকে চলে যাবে।এলাকাবাসীর দাবী স্কুল চলাকালীন সময়ে উদয়পুর রাস্তার মাথা থেকে নতুন হাকিমুউদ্দিন বাজার এই সময় কিশোর গ্যাংদের আনাগোনা বেশী দেখা যায়। আসরের পর থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত তারা এই স্হানগুলোতে আড্ডায় মেতে উঠে। প্রতিটা এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর আশে পাশে তারা আড্ডার নামে ইভটেজিং এর নামে অপকর্মে লিপ্ত থাকে। এই সমস্ত জায়গায় বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হলে অভিভাবকরাও স্বস্তি পেতেও। বোরহানউদ্দিন থানার প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করি এই সময়ে।ক্ষেত্রবিশেষে ধরা-ছোঁয়ার বাইরে থেকে যায় অপরাধীরা। ধরা পড়লেও শাস্তি কতটুকু হবে তা নিয়ে শংকিত ভুক্তভোগী মানুষ ও তাদের পরিবার। নানা ধরনের অপরাধ করার কৌশল রপ্ত করছে এইসব কিশোর অপরাধীরা। এদের আড্ডা বেশীর ভাগ বিভিন্ন রেস্তোরাঁয়। পড়াশোনা ফাঁকি দিয়ে চিপায় চাপায় আড্ডা দিয়ে বেড়ায়।কিশোর অপরাধীরা আবার বিভিন্ন গ্যাং এর মাধ্যমে তথাকথিত ‘বড় ভাইদের’ আষ্কারা পেয়ে অপরাধ করে বেড়াচ্ছে।সাধারণ মানুষের অসহায় এ অবস্থা থেকে মুক্তি না মিললে সমাজে বাস করাও দায় হবে। বিভিন্ন সময় দেখা গেছে, অনেক ভালো স্কুলের মেধাবি শিক্ষার্থীরাও এ ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িয়েছে। করোনা কালীন স্কুল বন্ধ থাকায় তাদের মাথায় পড়াশোনা নাই বিধায় তারা আড্ডায় পরে বিভিন্ন অনৈতিক কার্যকলাপ এর সাথে ধীরে ধীরে জড়িয়ে যাচ্ছে। এ নিয়ে মা-বাবা, অভিভাবক, আত্মীয়-স্বজন চিন্তিত ও উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন