সর্বশেষঃ

টেক্সাসের একটি প্রাথমিক স্কুলে গুলি ; প্রাণ গেছে ১৯ শিশু সহ ২১ জনের

 

 

অনলাইন ডেস্ক :

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের একটি প্রাথমিক স্কুলে বন্দুকধারীর গুলিতে অন্তত ১৯ শিশুসহ একুশজন নিহত হয়েছে। খবর সি এন এন এর।

মঙ্গলবার (২৪ মে) ইউভ্যালডিতে এলাকার রব এলিমেন্টারি স্কুলে এ ঘটনা ঘটে। টেক্সাসের প্রাথমিক স্কুলে ঢুকে নির্বিচারে গুলি চালানো আক্রমণকারী নিজেও নাবালক এবং নিরাপত্তারক্ষীর গুলিতে সে মারা যায়। টেক্সাসের গভর্নর গ্রেগ অ্যাবট জানিয়েছেন, অভিযুক্তের নাম স্যালভাডোর রামোস। সে মার্কিন নাগরিক।

হোয়াইট হাউসে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে।
ইউভ্যালডি শহর মেক্সিকো সীমান্তের কাছে স্থানীয় ১৮ বছর বয়সি অভিযুক্ত স্যালভাডোর রামোস প্রাথমিক স্কুলে ঢুকে এই তাণ্ডব চালায়। (মার্কিন নাগরিক)। স্কুলে ঢুকে সে নির্মমভাবে ও নির্বিচারে গুলি চালায়। সি এন এন লিখেছে, তার কাছে একটি রাইফেল ও একটি হ্যান্ডগান ছিল। সে ঘটনাস্থলে গাড়ি চালিয়ে যায়। তারপর গাড়িটি ফেলে রেখে স্কুলে ঢুকে গুলি চালাতে থাকে। টেক্সাস ডিপার্টমেন্ট অফ পাবলিক সেফটির কর্মকর্তারা সিএনএনকে জানিয়েছেন, বাড়ি থেকে বের হওয়ার আগে রামোস তার দিদিমাকে গুলি করে। তারপর রাইফেল ও হ্যান্ডগান নিয়ে সে গাড়ি চালিয়ে স্কুলে আসে। তার শরীরে ছিল বুলেটের বেল্ট।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নির্দেশ দিয়েছেন, হোয়াইট হাউস, সেনা ঘাঁটি, নৌবাহিনীর জলযান, মার্কিন দূতাবাসে দেশের পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। বাইডেন বলেছেন, ”বিশ্বের অন্যত্র তো এই ধরনের আক্রমণের ঘটনা বিরল। তাহলে আমরা কেন এই হত্যালীলার মধ্যে থাকব? কেন এই রকম ঘটনা ঘটতেই থাকবে? ঈশ্বরের নাম নিয়ে মেরুদণ্ড সোজা রেখে আমরা সাহসের সঙ্গে কেন এর মোকাবিলা করতে পারব না? এখনই সময়, বেদনাকে কাজে রূপান্তরিত করার।”

মার্কিন কংগ্রেসে একাধিকবার বন্দুক ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন রূপায়ণ করার চেষ্টা হয়েছে। কিন্তু শক্তিশালী ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন লবির চাপে শেষপর্যন্ত সেই বিল পাস হয়নি।

যে বাচ্চারা মারা গেছে তারা দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণিতে পড়তো। তাদের বয়স সাত থেকে ১০ বছরের মধ্যে।

নিহত বাকি দু’জন প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে একজন ওই শিশুদের শিক্ষক বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তার নাম ইভা মিরেলেস। দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের সংবাদে অবশ্য নিহত দুইজনের পরিচয়ই শিক্ষক বলা হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন