জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থগিত পরীক্ষা চালুর দাবিতে ভোলায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

মেসকাত আহাম্মেদ (ভোলা কলেজ প্রতিনিধি)

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান ও ঘোষিত পরীক্ষা স্থগিত নয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার দাবিতে ভোলায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন বিভিন্ন কলেজের পরীক্ষার্থীরা। সব চলে, পরীক্ষা নিতে কিসের ভয়। শিক্ষা ক্ষেত্রে বৈষম্য, মানি না মানবো না। খেলা হয় মেলা হয়, পরীক্ষা নিতে কিসের ভয়সহ নানা স্লোগানে এ কর্মসূচী পালন করে তারা। আজ সোমবার সকালে জেলা প্রেসক্লাবের সামনে ভোলা সরকারি কলেজ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে অনুষ্ঠিত এ কর্মসূচীতে ভোলার জেলার বিভিন্ন কলেজের পরীক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন। পরে তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল করেন। উক্ত মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য দেন- ভোলা সরকারি কলেজ শিক্ষার্থী এইচ এ শরীফ, মো: রাইহান, মো: শাকিল মাতাব্বর, সাব্বির হোসেন ও আসমাউল হোসনা হ্যাপী সহ আরও অনেকে। বক্তারা বলেন, চলমান অনার্স (সম্মান) পরীক্ষার ছয়টি বিষয় ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু হঠাৎ করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনের সকল পরীক্ষা স্থগিত করায় বাকি তিনটি বিষয়ের পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তায় পড়েছেন তারা। দেশের বিভিন্ন স্থানে মেলা হচ্ছে, শপিংমলে মানুষের ভিড়, অফিস আদালত আগের গতিতে চলছে, স্টেডিয়ামে খেলা হচ্ছে, করোনার কারণে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেন বন্ধ থাকবে, পরীক্ষা কেন স্থগিত করা হবে। শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, করোনার কারণে বার বার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শিক্ষাখাত পিছিয়ে যাচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষা না দিতে পারায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষিত বেকার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ছে। দীর্ঘসময় ধরে একই শ্রেণিতে পড়ে থাকার কারণে প্রতিষ্ঠানে তাদের খরচ বাড়ছে, কিন্তু প্রতিটি শিক্ষার্থীর পরিবারের পক্ষে এ খরচ বহন করা সম্ভব হয়না। ২০১৬-১৭ সেশনে একই বর্ষে আমরা গত ২-৩ বছর ধরে পড়ে আছি, কয়েকদিন আগে অনার্স চতুর্থ বর্ষের চুড়ান্ত পরীক্ষা শুরু হলেও হঠাৎ করে তা স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। অতিবিলম্বে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করে পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

ফেসবুকে লাইক দিন