উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে শাবিতে ফের মশাল মিছিল

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মশাল মিছিল করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আজ রোববার রাত ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চ হতে মশাল মিছিল বের করেন প্রায় এক হাজার শিক্ষার্থী।মিছিলটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এ সময় শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে ‌স্লোগান দিতে থাকে। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী নাফিজা আনজুম ইমু বলেন, যত দিন এ ভিসি পদত্যাগ না করবে ততদিন আমরা আন্দোলন করে যাব।এর আগে সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটে উপাচার্যের বাসভবনের বিদ্যুতের লাইন বিছিন্ন করে দেন আন্দোলনকারীরা। এরপর থেকে উপাচার্য অন্ধকারে রয়েছেন। তার ভবনের দিকে কোনো ধরনের আলো জ্বলতে দেখা যায়নি। এর আগে বিকাল সাড়ে ৪টায় মানব শেকল তৈরি করে উপাচার্যের বাসভবন ঘেরাও করেন শিক্ষার্থীরা।উপাচার্য পদত্যাগ না করা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা কর্মসূচি অব্যাহত রাখবেন বলে জানিয়েছেন।গত ১৩ জানুয়ারি থেকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রভোস্ট কমিটির পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। পরে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিও সামনে আসে।

এরপর ১৬ জানুয়ারি বিকেলে তিন দফা দাবি আদায়ে উপাচার্যকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইআইসিটি ভবনে অবরুদ্ধ করেন শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ উপাচার্যকে উদ্ধার করতে গেলে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ওই সময় পুলিশ সাউন্ড গ্রেনেড, টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট ছুড়ে শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। পুলিশ ৩০০ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা করে।

১৯ জানুয়ারি বিকেলে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে তার বাসভবনের সামনে আমরণ অনশন শুরু করেন ২৩ জন শিক্ষার্থী। একই দাবিতে পরদিন বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে কয়েকশো শিক্ষার্থী ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল বের করেন। অনশনে অসুস্থ ১৬ শিক্ষার্থী বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ফেসবুকে লাইক দিন