আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বুধবার, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে মে, ২০২৪ ইং, ১৩ই জিলক্বদ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

বামনায় নদীতে গোছল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু।

মোঃ শাকিল আহমেদ, বামনা (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ বরগুনার বামনা উপজেলার ০৩ নং রামনা ইউনিয়নের দক্ষিণ রামনা গ্রামে (রামনা-ফুলঝুরি নামক) রামনা খেয়াঘাটে নদীতে গোছল করতে গিয়ে মোঃ জন (৭) নামক শিশুর মৃত্যু হয়েছে।
গতকাল বুধবার ১৭ এপ্রিল দুপুর ১:৩০ সময় জনি তার মায়ের সাথে নদীতে গোছল করতে যায়। হঠাৎ করে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়ে ছেলেটি। তারপর পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় লোকজন অনেক খোজাখুজি করে। এবং বামনা ফায়ার সার্ভিস খবর দিলে তাদের একটি টিম সেখানে গিয়ে অনেক খোজাখুজি করেও পাননি।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায় দক্ষিণ রামনা গ্রামের আঃ রাজ্জাক (৪৫) মিয়ার ছেলে মোঃ জনি(৭) তার মায়ের সাথে নদীতে গোছল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়ে যায়। প্রতিদিন একই সময় জনি তার মায়ের সাথে নদীতে গোছল করতে যায়। কিন্ত আজকে যে ছিল তার শেষ গোছল তা জানা ছিলনা ছেলে হারানো মায়ের। জনির বাবা আঃ রাজ্জাক ও তার মা ভিক্ষা করেই চলে তাদের সংসার। ছেলেকে হারিয়ে পরিবারের নেমেছে শোকের ছায়া।
আজ ১৮ এপ্রিল সকাল আনুমানিক ৬:০০ ঘটিকার সময় চরে ভেসে ওঠে ছেলেটির নিথর দেহ। পরে তাকে মৃত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে।
ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বদিউজ্জামান জানান, আমরা খবর পাওয়ার সাথে সাথেই আমাদের একটি টিম সেখানে গিয়ে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করেন কিন্ত অনেক খোজাখুজির পরেও পাওয়া যায়নি। এবং পরবর্তীতে আজকে সকালে স্থানীয় জনসাধারণ ছেলেটির মৃত্যু দেহ নদীতে ভাসতে দেখে উদ্ধার করেছে এবং আমাদের খবর দিলে আমরা তাৎক্ষণিক যাই ঘটনা স্থানে। এবং লাশ ফায়ার ডেডভডি পোশাক পড়িয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করি।
বামনা থানা অফিসার ইনচার্জ তুষার কুমার মন্ডল বলেন আমারা ছেলেটির মৃত্যুর ঘটনা সনাক্ত করতে পেরেছি যে নদীতে পরে মৃত্যু হয়েছে। তাই লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করি।

ফেসবুকে লাইক দিন