আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ শুক্রবার, ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৪ই জুন, ২০২৪ ইং, ৭ই জিলহজ্জ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

দৌলতখানে কলেজ ছাত্র কে কুপিয়ে হত্যা।

নাজমুল হাসান রাসেলঃ সোমবার সন্ধ্যায় দৌলতখান উপজেলার মৃর্ধার হাট বাজারের কাছে কদম তলা নামক জায়গায় নূর আলমের দোকানের সামনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়। স্হানীয়দের সাথে আলাপ করে জানাগেছে মাগরিবের নামাজের পর ছালিমের ছেলে ঘাতক কবির, সুমন, সবুজসহ অজ্ঞাত নামের আরো ৪/৫ জনের উপস্থিতি তে কলেজ ছাত্র নিহত আসিফ এর সাথে কথার কাটাকাটি হয়। এর কিছুক্ষন পর ঘাতক কবির ছালিম, সুমন ও সবুজসহ কবিরের সহযোগীরা আসিফ কে ডেকে কবিরের বসতঘরের কাছে নিয়ে যায়। আছসিফের চিৎকার চেচামেচিতে দোকানের সামনে থাকা লোকজন এগিয়ে আসে। তখন ঘাতকদের সংঘবদ্ধ দলের এলোপাতাড়ি দা বটির কোপে গুরুতর আহত হয় আসিফসহ মিরাজ, আমজাদ, রাছেল ও দুলাল সর্দারসহ লোকজন। তখন নূরে আলম দোকানের লাইট বন্ধ ছিলো। আহতদের দৌলতখান হাসপাতালে নেয়া হলে ভোলা সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আছিব কে মৃত ঘোষণা করেন। বাকী আহতদের মধ্যে রাছেল ও দুলদলের অবস্থা আশংকাজনক তাদের বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজে স্হানান্তর করহয়। স্হায়ী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ননামতে কদম তলা জায়গাটিতে অবৈধ মাদক পাচারেরে রুট হিসাবে ব্যাবহার করা হয়। এ ঘটনায় নিহত আছিবের পিতা বাবুল বাদী হয়ে দৌলতখান থানায় কবির, ছালিম, সুমন, সবুজ ও আরো ৫/৬ জন কে অজ্ঞাত আসামি করে একটি হত্যা মামলার অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযুক্ত সুমন ছাড়া কবিরের মা সহ সবাই কে রাতেই এস আই জসিম এর নেতৃত্বে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়া হয় তিনি জানান। লাশ পোষ্টমর্টেমের জন্য মর্গে রাখা হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন