আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বৃহস্পতিবার, ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ ইং, ১৩ই জিলহজ্জ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

আমি কবরে গেলেও বলবাে নৌকায় ভােট দেন, শাহজাহান ওমর

মশিউর রহমান রাসেল, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনে নৌকা প্রতীকের আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহজাহান ওমর বলেছেন, ‘‘বরিশাল, ঝালকাঠি, রাজাপুর, কাঠালিয়া এ অঞ্চলে আমি বিএনপির দুর্গ সৃষ্টি করছিলাম। নেত্রী শেখ হাসিনা এটি উপলব্ধি করেছেন, কানে কানে বলছেন, এখন এইটা উল্টা ঘুরাইয়া আওয়ামী লীগের দুর্গ গড়ে দেন। আমি করবাে, আমার উপর তার যে আস্থা তার বরখেলাপ হবে না ইনশাল্লাহ। এ অঞ্চলে আর নৌকার বাইরে কেহ এমপি নির্বাচিত হতে পারবে না। আমি কবরে গেলেও বলবাে ওরে মাইনাের দল তাড়াতাড়ি নৌকায় ভাট দেন।’’ বিএনপি সম্পর্কে তিনি বলেন, আমি আগে একটি দলে ছিলাম সেই দল আমার সিরিয়াল ছিল ১১, আমি কেন আওয়ামীলীগে আসছি জানেন, রাজনৈতিক দল যদি নির্বাচন না করে, এই দল টেকে না। নির্বাচন নিয়ে তিনি বলেন, আগামী ৭ তারিখের নির্বাচনে সবাইকে কেন্দ্রে গিয়ে ভােট দিতে হবে। কেন্দ্রে বসে সীল মারা যাবে না। কারন নির্বাচনে দেশী-বিদেশী সাংবাদিক ও পর্যবেক্ষণ থাকবে। তারা কেন্দ্রে কেন্দ্রে ঘুরে বড়াবে। সীল মারলে তারা ছবি তুলে ছড়িয়ে দিবে। তাহলে নির্বাচন প্রশবিদ্ধ হয়ে যাবে। নির্বাচন নিয়ে দেশী-বিদেশী নানা যড়যন্ত্র চলছে। তাই ৫ পার্সেন্ট, ১০ পার্সেন্ট, ২০ পার্সেন্ট ভােট পড়লে এই নির্বাচন অবৈধ বলে বিদেশী গণমাধ্যম ও বিরাধী পক্ষ প্রচার করবে। তাই কমপক্ষে ৬০ শতাংশ ভােট কাস্ট হতে হবে। তিনি আরও বলেন, আপনারা একদিন ভােট কেন্দ্রে গিয়ে নৌকায় সীল মারুন, আমি আগামী ৫ বছর আপনাদের সেবা করতে চাই। আমি আপনাদের সেবক হতে চাই। এই সভায় ভােটারদের কাছে নৌকার পক্ষে ভােট চান এম শাহজাহান ওমর বীরউত্তম। সােমবার বিকেলে লেবুবুনিয়া মাদ্রাসা মাঠে নির্বাচনী পথসভায় তিনি এসব কথা বলন। সাতুরিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়ােজিত এ সভায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সােবাহান খানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ’লীগের সভাপতি অ্যাডডভোকেট খায়রুল আলম সরফরাজসহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আ’লীগের নেতৃবৃন্দরা।

ফেসবুকে লাইক দিন