আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ শনিবার, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ ইং, ৬ই মুহাররম, ১৪৪৬ হিজরী
সর্বশেষঃ

উত্তপ্ত মোংলার ভোটের মাঠ, স্বতন্ত্র প্রার্থী দৌঁড়াচ্ছেন প্রেসক্লাবে

মোংলা প্রতিনিধিঃ পুনঃরায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন মোংলা-রামপালের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ ইদ্রিস আলী ইজারাদার (ঈগল মার্কা)।
বুধবার দুপুরে মোংলা প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন আয়োজন করেন তিনি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন “প্রতিপক্ষ নৌকার প্রার্থী পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয় মন্ত্রনালয়ের উপ মন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহারের সমর্থকরা উষ্কানীমূলক ভাবে তার পোষ্টার ছিড়ে ফেলছেন। তার নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নানাভাবে হুমকি ধামকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শনের মাধ্যমে নির্বাচন পরিস্থিতির শান্তি শৃঙ্খলা নষ্ট করছেন ।
এছাড়া তার (হাবিবুন নাহারের) স্বামী প্রতিমন্ত্রী পদ মর্যাদার খুলনা সিটি করর্পোরেশন মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক সরাসরি নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে চলেছেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছেন ইদ্রিস আলী ইজারাদার।
একই অভিযোগে এনে গত রবিবারও (২৪ ডিসেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে করে ছিলেন ইদ্রিস আলী ।
সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ঈগলের এই প্রার্থী জানান “ পরিস্থিতি ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। এতে সাধারণ ভোটারদের মাঝে ভয়ভীতি ছড়িয়ে পড়ছে।”
তিনি বলেন, গত ২৬ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১১টায় মোংলা পৌর শহরের ৬নং ওয়ার্ডের কবরস্থান রোড সংলগ্ন এলাকায় প্রতিদ্বান্ধি নৌকা প্রতীকের সমর্থক সুন্দরবন ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান শেখ কবির উদ্দিনের ছেলে শেখ সাদী মো বাদল বেপরোয়া মটর সাইকেল চালিয়ে আমার ৪ নারী কর্মীকে গুরুতর আহত করে। বর্তমানে এই ঘটনাকে ভিন্নখাতে নিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করে ফায়দা লুটার চেস্টা করছে নৌকার সমর্থকরা।
তিনি আরো বলেন “ একই দিন সন্ধ্যায় সুন্দরবন ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের চায়না মার্কেট সংলগ্ন এলাকায় আমার নির্বাচনী ক্যাম্পে নৌকা প্রতীকের সমর্থরা সংঘবন্ধভাবে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় এবং একটি চায়ের দোকান লন্ডভন্ড করে ফেলে । এ ঘটনায় আমার ১০-১২জন কর্মী আহত হয় বলেও যোগ করেন ইদ্রিস আলী ইজারাদার।
তবে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকার প্রার্থী পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয় মন্ত্রনালয়ের উপ মন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এ প্রতিবেদককে মোবাইল ফোনে বলেন “ আমার প্রতিটি মিটিংয়ে অনেক জনসমর্থন হচ্ছে। এছাড়া সম্প্রতি ঈগল প্রার্থীর ইউনিয়নে আমার সর্বোচ্চ জন¯্রােত হয়েছে। যা দেখে তারা (ঈগলের সমর্থকরা) ঈর্ষানীত হয়ে অপ্রচার ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছেন আমার নেতা কর্মীরদের এবং হামলা চালাচ্ছেন।
এদিকে নির্বাচন পরিস্থিতি নিয়ে জানাতে মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, ছোটখাটো ঘটনায় উত্তেজনা কিছুটা তৈরি হলেও বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। অবাদ ও সুষ্ঠ নির্বাচন করার জন্য যা যা করার দরকার তাই-ই করা হবে বলে জানান ওসি।
মোংলা উপজেলা নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নারায়ণ চন্দ্র পাল বলেন, বাগেরহাট-৩ আসনে মোট ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ৫৪ হাজার ৮৯৫ জন। পুরুষ এক লাখ ২৭ হাজার ১৭৭, নারী ১ লাখ ২৭ হাজার ৭১৮ জন। নির্বাচনে সাতজন প্রার্থী হয়েছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন