আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ রবিবার, ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২৪ ইং, ৯ই জিলহজ্জ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

লালমোহনে শিশু হত্যা মামলায় ৪ সন্দেহভাজন গ্রেফতার। রিমান্ড আবেদন

লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: ভোলার লালমোহনে মো. রায়হান (১০) নামে এক শিশুকে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় ৪ সন্দেহভাজন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) রাতে লালমোহনের বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পৌরসভা ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. মাকসুদুর রহমান কাজলের ছেলে মারুফ (২৫), মো. ইউনুছের ছেলে মো. মাহাবুব (৩৫), মো. আলমগীরের ছেলে মো. রিয়াজ (৩৫) ও কালমা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড চরছকিনা গ্রামের বাসিন্দা আ: হামিদ মিন্টুর ছেলে মো. আলাউদ্দিন (২৮)।
মামলা সূত্রে জানা যায়, লালমোহন পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের মো. রাশেদ ও মোসা: ঝর্ণা বেগম দম্পত্তির ছেলে মো. রায়হান ২০২১ সালের ১২ অক্টোবর নিজ বাড়ি থেকে খেলতে বেরিয়ে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের পরদিন ১৩ অক্টোবর লালমোহন থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন তারা। ডায়েরী নং-৫২৬। একইসাথে নিখোঁজ ছেলেকে বিভিন্ন যায়গায় খোঁজাখুজি করতে থাকেন তারা।
এদিকে গত ২০২২ সালের ২৭ মার্চ বিকেলে এই দম্পতির বাড়ির প্রায় ২০০ গজ দূরে পরিত্যাক্ত জোড়াখালের কচুরিপানা পরিস্কার করতে গিয়ে মাথার খুলি পান জেলেরা। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ গিয়ে তল্লাসি চালিয়ে হাড়, মাড়ির দাঁতের চোয়ালসহ আরও কিছু আলামত উদ্ধার করে এবং এ ঘটনায় লালমোহন থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়। তবে উদ্ধারকৃত আলামতের মধ্যে পরনের বেল্টটি নিজেদের নিখোঁজ সন্তান রায়হানের বলে দাবি করেন মো. রাশেদ ও মোসা. ঝর্ণা বেগম দম্পত্তি। পরে ডিএনএ টেস্টে ওইসব আলামতগুলো রায়হানের বলে শনাক্ত হয়। এরপরই সন্তানকে হত্যার অভিযোগে চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর লালমোহন থানায় মামলা দায়ের করেন রায়হানের মা মোসা. ঝর্ণা বেগম। মামলা নং-০৮। ওই মামলায় জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে পূর্বে থেকেই প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় ৫জন কে সন্দেহ করে তাদের নাম উল্লেখ করা হয়। পরে বৃহস্পতিবার রাতে ৫ জনের মধ্যে ৪ জনকে গ্রেফতার পুলিশ এবং শুক্রবার বিকেলে তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাহবুব উল আলম বলেন, মামলার চার সন্দেহভাজন আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং তাদের ৭দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। এছাড়াও ঘটনার রহস্য উদঘাটনে জোর প্রচেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।
এদিকে শিশু মো. রায়হান (১০) হত্যার ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছেন তার বাবা মো. রাশেদ ও মা মোসা: ঝর্ণা বেগম। যাতে কেউ শত্রুতা বশত ভবিষ্যতে কারো মায়ের বুক খালি না করে।

ফেসবুকে লাইক দিন