আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বৃহস্পতিবার, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মে, ২০২৪ ইং, ১৩ই জিলক্বদ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

সুন্দরবনে বাঘ তাড়িয়ে জেলের ক্ষতবিক্ষত মাথা উদ্ধার করলেন গ্রামবাসী

মোংলা প্রতিনিধি: পূর্ব সুন্দরবনে মাছ ধরতে গিয়ে শিপার হাওলাদার (২২) নামে এক জেলের দেহ বাঘে খেয়ে ফেলেছে বলে জানা গেছে। রবিবার (১ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে ওই জেলের মাথাসহ পরিধেয় কাপড় উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। শিপার বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সুন্দরবন সংলগ্ন পশ্চিম রাজাপুর গ্রামের ফারুক হাওলাদারের ছেলে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য কামাল হোসেন তালুকদার জানান, বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) শিপার বাড়ি থেকে কাউকে না বলে ভোলানদী পাড় হয়ে কাকড়া ধরতে একা সুন্দরবনে প্রবেশ করে। তার বাবা ফারুক হাওলাদার এর আগে বন বিভাগের ধানসাগর স্টেশন অফিস থেকে পারমিট নিয়ে সুন্দরবনের পৃথক স্থানে মাছ ধরতে যান। শনিবার দুপুরে ফারুক বাড়ি এসে জানতে পারেন তার ছেলে শিপার চার দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। এরপর বাড়ির কাছাকাছি সুন্দরবনে খোঁজাখুঁজি করে ছেলেকে না পেয়ে এলাকাবাসীকে জানান। রবিবার সকালে তার নেতৃত্বে প্রায় ৫০ জন এলাকাবাসী সুন্দরবনে খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে সকাল ৮টার দিকে বনের তুলাতলা খাল এলাকায় শিপারের মাথা নিয়ে একটি বাঘকে বসে থাকতে দেখেন তারা। এ সময় এলাকাবাসী একত্র হয়ে বাঘটিতে তাড়িয়ে শিপারের ক্ষতবিক্ষত মাথা উদ্ধার করেন।
এরপর আশেপাশের বন তল্লাশি করে তার পরিধেয় কাপড় উদ্ধার করা হয়। তাদের ধারণা, এর আগে বাঘটি শিপারের সম্পূর্ণ দেহ খেয়ে ফেলেছে। রবিবার দুপুরে ধর্মীয়রীতি অনুযায়ী শিপারের দেহাবশেষের জানাজা পড়িয়ে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে কামাল হোসেন জানান।
বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, ‘শিপারের বাড়ি সুন্দরবন সংলগ্ন হওয়ায় সে বন বিভাগের অনুমতি না নিয়ে একা পালিয়ে বনে প্রবেশ করে। সকালে এলাকাবাসী খোঁজাখুঁজি করে তার মাথা নিয়ে আসার পর আমরা ঘটনাটি জানতে পারি। ভোলা নদী মরে যাওয়ার কারণে রাতে পালিয়ে এলাকাবাসীর অনেকে সুন্দরবনে প্রবেশ করে থাকে বলেও জানান তিনি।

ফেসবুকে লাইক দিন