আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ শনিবার, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২৪ ইং, ২০শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরী

বৃষ্টি ও অতিরিক্ত জোয়ারে পানিবন্দি মনপুরায় ১০ গ্রামের মানুষ

মনপুরা প্রতিনিধি: টানা বৃষ্টি ও অতিরিক্ত জোয়ার প্রবাহিত হয়ে ভোলার মনপুরায় ১০ গ্রামের হাজারো মানুষ পানিবন্দি রয়েছে। গত বুধবার থেকে জোয়ারের পানি বিপৎসীমার ৬০-৭০ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত ও অতি ভারী বর্ষণ হচ্ছে। বুধবার থেকে রবিবার পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থান ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়। বেড়িবাঁধের বাহিরের বাসিন্দা চরম আতঙ্কিত রয়েছেন।
আজ দুপুরের দিকে উপজেলার বেড়িবাঁধ এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, প্রচণ্ড বাতাস বইছে। নদীর পানি স্বাভাবিক জোয়ারের তুলনায় বিপৎসীমার ৬০-৭০ মিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলার ২ নং হাজির হাট ইউনিয়নের দাসের হাট, চর মরিয়ম, সোনার চর সহ ১ নং মনপুরা ইউনিয়নে নাঈবের হাট, কাউয়ারটেক ৩ নং উত্তর সাকুচিয়া ইউনিয়নের আলমবাজার, মাষ্টার হাট ৪ নং দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়নের কোরালীয়া সহ ১০ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। এইসময় পানিবন্দি বাসিন্দারা বলেন বাড়ির ভেতরে পানি ওঠায় ঠিকমতো রান্নাবান্না করতে পারছে না। উপজেলার বেড়িবাঁধরে বাহিরের মানুষ জানান অতিরিক্ত জোয়ার ও বৃষ্টি করণে নদীর পানি পুকুরে প্রবেশ করে পুকুরের মাছ ভেসে গেছে।

এছাড়াও মনপুরা উপজেলা থেকে বিচ্ছিন্ন চর অঞ্চল চর কলাতলী ডালচরে ২০ হাজার মানুষ ৫ দিন পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে বেড়িবাঁধ না থাকায় চরম আতঙ্কিত রয়েছে সেখানে বসবাসরত বাসিন্দরা। বাসিন্দরা জানান বৃষ্টি ও অতিরিক্ত জোয়ার রাস্তা পানির নিচে ডুবে চলাচলে সমস্যা তৈরী হচ্ছে। বাড়ির ভেতরে পানি ওঠায় বাসিন্দারা ঠিকমতো রান্নাবান্না করতে পারছি না।

উপজেলার ২ নং হাজির হাট ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন হাওলাদার জানান পানিবন্দি গ্রামের লোকজনের তালিকা করা হয়েছে। সরকারি সহযোগিতার এলে সহযোগিতা দেওয়া হবে ।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফজলুল হক জানান, সরেজমিন ঘুরে তালিকা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন