আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে মে, ২০২৪ ইং, ১২ই জিলক্বদ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

ভোলায় ঘুমন্ত বিদ্যুৎ বিভাগ, মনপুরায় ৮ দিন যাবত নেই বিদ্যুৎ !!

মেহেদী হাসানঃ-আজ ৮দিন যাবত ভোলার মনপুরা উপজেলা বিদ্যুৎহীন। দিনের বেলা মাত্র ১ঘন্টার জন্য বিদ্যুৎ দেওয়া হয়।এই অসহ্য গরমে বিদ্যুৎ না থাকায় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে সাধারণ, জনগণের বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধদের। অনেকেই গরম সহ্য করতে না পেরে অসুস্থ হয়ে পরছেন। বিদ্যুৎ না থাকার কারণে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় সমস্যা হচ্ছে। বিদ্যুৎ না থাকায় অনেক শিক্ষার্থীকে মোমবাতি ব্যবহার করে পড়া-লেখা চালাতে হচ্ছে। স্থানীয় ব্যবসায়িরাও বিদ্যুৎ না থাকায় ক্ষতির মুখে আছে। ইলেকট্রনিকস কাজের সাথে জড়িত সকল ব্যবসায়ীকে তাদের ব্যবসা সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখতে হচ্ছে। সাথে অন্য ব্যবসায়ীরা ক্ষতির মুখে আছেন। তবে এ নিয়ে কোন মাথা ব্যাথা নেই মনপুরার ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি ওজোপাডিকো’র। মনপুরা ওজোপাডিকো’র আবাসিক প্রকৌশলীর সাথে অনেকে মোবাইল ফোনে কথা বলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।ওজোপাডিকো’র মুখে একটাই বাণী আমাদের জেনারেটর নষ্ট, মেশিনগুলো ঠিক করার কাজ চলছে, খুব দ্রুত আগের মতো ৮ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। বিদ্যুৎের এই তালবাহানা থেকে মুক্তি চাই মনপুরাবাসী, একই সাথে মনপুরা উপজেলায় জাতীয় গ্রীডের বিদ্যুৎ চাই স্থানীয় সর্ব সাধারন।।

বিষয়টি নিয়ে ভোলা জেলা প্রশাসকের নিকট জানতে চাইলে, তিনি জানান আমি ভোলা বিদ্যুৎ বিভাগীয় প্রকৌশলীকে নির্দেশনা প্রদান করেছি। আশাকরি তিনি তদন্ত কমিটি করে সকল বিষয়গুলি খতিয়ে দেখবেন।।

বিষয়টি বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর নিকট জানতে চাইলে, তিনি ভোলার খবরকে জানান,মনপুরায় বিদ্যুৎ অফিসের দুইটি মেশিনেই বন্ধ, কারিগরি সমস্যার সমাধানের জন্য খুব দ্রুত চেষ্টা চলছে। এছাড়া মনপুরার সৌর বিদ্যুৎ পাওয়ার প্লান্ট হাতে নিয়েছে সরকার, আশা করি আগামী ডিসেম্বরের মধ্যেই মনপুরার মানুষ সৌর পাওয়ার প্লানে বিদ্যুৎ পাবে, সরকার কর্তৃক নির্ধারিত রেটে।।

উল্লেখ্য মনপুরা উপজেলার সর্বসাধারণের প্রাণের দাবি এই জেলায় জাতীয়গ্রেটের বিদ্যুৎ দেয়া হোক, বিদ্যুৎ সংকট না বিদ্যুৎ দুর্নীতি এই স্লোগান এ মনপুরায় দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে মনপুরা সর্বসাধারণ।।

ফেসবুকে লাইক দিন