আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ শনিবার, ২৯শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুলাই, ২০২৪ ইং, ৬ই মুহাররম, ১৪৪৬ হিজরী
সর্বশেষঃ

ভোলায় ঘরে ঘরে আওয়ামীলীগের দুর্গ গড়ে তোলার নির্দেশ- তোফায়েল আহমেদ

ভোলার খবর  ডেস্ক: মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) সকালে ভোলার বাংলা স্কুল মাঠে জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে শান্তি ও উন্নয়ন শোভাযাত্রা এবং সমাবেশে অংশ নিয়ে আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ভোলা-১ আসনের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেন, এ বিষয়ে বিদেশিদের কিছু করণীয় নেই। বাংলাদেশ স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। বাংলাদেশ বিদেশিদের কথায় চলে না। নির্বাচনে কখনও বিদেশিরা হস্তক্ষেপ করে না। এই সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে এবং আওয়ামীলীগই বিজয়ী হবে।

বিএনপির দাবির প্রসঙ্গ উল্লেখ তিনি বলেন, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার কোনো দিন আসবে না। বিএনপি বছরের পর বছর ধরে একই বক্তব্য দিয়ে চলেছে। মানুষ তাদের এই বক্তব্য পছন্দ করে না। নির্বাচনের আর ৫ মাস বাকি আছে। এই নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অংশ নেবে। ইনশাআল্লাহ বিজয়ী হবে।’

সমাবেশে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘আগামী নির্বাচনের আগে ষড়যন্ত্র শুরু হবে। বিএনপি এরইমধ্যে ষড়যন্ত্র করতে শুরু করেছে। আপনারা ঘরে ঘরে আওয়ামীলীগের দুর্গ গড়ে তুলবেন।’

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ প্রায় ১৫ বছর ধরে ক্ষমতায়। আমরা এতো উন্নয়নমূলক কাজ করেছি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে, ফলে বাংলাদেশ বিশ্বে মর্যাদাশালী দেশে রূপান্তরিত হয়েছে।

এ সময় তিনি ভোলার উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে বলেন, ‘ভোলায় পর্যাপ্ত গ্যাস রয়েছে। গ্যাসের ওপর ভিত্তি করে শিল্প কারখানা গড়ে উঠবে। ভোলা হবে একটি শিল্পনগরী। ভোলার ঘরে ঘরে গ্যাস সরবরাহ করার চেষ্টা করে যাচ্ছি আমরা।’সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি দোস্ত মাহামুদ, ভোলা পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকীব, এনামুল হক আরজু,  উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী নেওয়াজ পলাশ প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে তোফায়েল আহমেদের নেতৃত্বে শান্তি ও উন্নয়ন শোভাযাত্রা বের হয়। এতে ভোলা সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী অংশ নেন। শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে দলীয় কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শোভাযাত্রা শেষ হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন