আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বৃহস্পতিবার, ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ইং, ১১ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

গৌরনদীতে গণধর্ষন, ওসি আফজালের তৎপরতায় সাথে সাথে গ্রেফতার ৫

এম এ অন্তর হাওলাদারঃ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার শরিকল গ্রামে গনধর্ষন মামলার ৫ আসামীকে সাথে সাথে গ্রেফতার করেছে গৌরনদী মডেল থানা পুলিশ। গৌরনদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আফজাল হোসেন সাংবাদিকদের জানান গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের চন্দ্রহার গ্রামের এক প্রবাসির স্ত্রী (১৮) শনিবার দুপুরে একই উপজেলার শরিকল ইউনিয়নের শরিকল বাজার সংলগ্ন এক বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে যায়। দুপুর ২টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে শরিকল গ্রামের মোঃ নাসির মোল্লার ছেলে বখাটে ইয়াসিন মোল্লা (২০) তার সহযোগী একই গ্রামের জামাল হাওলাদারের ছেলে শিশির হাওলাদার (২২), শামছুল হকের ছেলে সালমান হোসেন (১৯) ও মৃত হানিফ বেপারীর ছেলে রেজাউল বেপারী (২১)সহ ৬-৭জন প্রবাসীর স্ত্রীকে জিম্মি করে মৃত হিরো মীরার ছেলে পলাশ মীরের (২০) দ্বিতল ভবনের নির্জন বাড়িতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষন করে আটকে রাখে। স্থানীয়রা বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে ভিকটিমকে ১৭জুন শনিবার বিকেল ৫টায় উদ্ধার করে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে নির্যাতিতা বাদি হয়ে গৌরনদী মডেল থানায় একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচজন আসামিকে মামলা দায়েরের সাথে সাথে গ্রেফতার করে। ১৮জুন রোববার আসামীদের বরিশাল আদালতে ও ধর্ষীতাকে পরীক্ষার জন্য বরিশাল মেডিকেলে প্রেরন করা হয়েছে। গৌরনদী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত মোঃ হেলাল উদ্দিন সাংবাদিক দের জানান শরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মোঃ ফোরকান হোসেন হাওলাদারকে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।
ওসি আফজাল হোসেন আরো জানান এ ঘটনায় ভিকটিম বাদি হয়ে ৭জনের নাম উল্লেখ করে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ সাথে সাথে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। ঘটনায় জড়িত অন্যন্য আসামিদেরকে গ্রেফাতের চেষ্টা চলছে।

ফেসবুকে লাইক দিন