আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বুধবার, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২২শে মে, ২০২৪ ইং, ১৩ই জিলক্বদ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

প্রাকৃতির অভিযোগ -তাকি আহমাদ

ভোলার খবর: সন্ধ্যা থেকে ইলেক্ট্রিসিটি নেই। ঘুটঘুটে অন্ধকার। নিস্তব্ধ চারদিক। আমি একা। এ সময়গুলোতে আমি খুব অদ্ভুত কাজ করি। আজ যা করছিলাম। নিজের সাথে কথা বলছিলাম, অর্থাৎ একপেশি কথা। এমন সময় মনে হল, কেউ একজন আমার প্রশ্নগুলোর উত্তর দিচ্ছে। কথা বলতে শুরু করলাম তার সাথে।
আমি বললাম-“কে তুমি?”
সে বলল-‘প্রাকৃতি’।
আমি বললাম-“এখানে কী চাও?”
সে বলল-‘আসতে বারণ বুজি’?
আমি বললাম- হ্যাঁ।
সে বলল-‘ তোমার একাকিত্বের সাথী হব।
আমি বললাম- “কেন?”
সে বলল- ‘থাকতে দিবেনা তোমার সাথে?’
আমি বললাম- “অবশ্যই, কিন্তু? ”
সে বলল- ‘কিন্তু কী?’
আমি বললাম- আমার মন ভালো নেই।
সে বলল- কেন?
আমি বললাম- তুমি তো জানো।
সে বলল- ‘জানা কতা কি আমাদের জানতে ইচ্ছে হয় না’।
আমি বললাম- “হয়, তবে সেটা অন্যের কথা,নিজের না।
এরপর নিরবতা। ঝিঁঝি পোকার ডাক। বাইরে স্নিগ্ধ বাতাস।
-“আচ্ছা তুমি আমার সাথে ককন থাকো?”, আমি বললাম।
-‘সব সময়’,সে বলল।
-“তাহলে কেন কেবল মন খারাপ হলে, অন্ধকার হলে,একা হলেই কাছে আস ? কেন এসময় শুধু আমার সাথে কথা বল ? আনন্দের মুহূর্তে কেন নয় ? ” হাস্যমুখে বললাম।
-‘সে তো তোমারই লাগি ‘,সে বলল।
-“মানে” আমি বললাম।
ওই আনন্দনয় মুহূর্তে তুমি আমার সাথে থাকো না।থাকো অন্যের সাথে। কেবল বিষাদে, দুঃখে আমার কাছে ফিরে আস।
আমি খানিক থতমত খেয়ে গেলাম!
সে বলতে লাগল-” মানুষ নিজেই ভিষণ স্বার্থপর, দ্বিচারি। সে আমাকে খুঁজে নিজ প্রয়োজনে, তার একাকীত্বে বা দুঃসময়ে। আর ভুলে যায় প্রাপ্তিতে,আনন্দে। কী অদ্ভুত সৃষ্টি!’
আমি স্তব্ধ হয়ে বসে রইলাম।
হঠাৎ মাথার ওপরে থাকা চাঁদের মত বাতিটা জ্বলে উঠল। ফিরে আসলাম বাস্তবতায়।চারদিকে খোঁজলাম। কোথাও তার দেখা মিলল না।হয়তো সেও আঁধারের সাথে উধাও। সে আমাকে জানান দিয়ে গেল। সত্যিই আমি একজন স্বার্থপর, দ্বিচারি। (পর্ব-১)

ফেসবুকে লাইক দিন