আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে মে, ২০২৪ ইং, ১২ই জিলক্বদ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

অন্যদের থেকে আপনার বেশি ঠান্ডা বা গরম লাগে কেন?

ভোলার খবর ডেস্ক: আপনি নিশ্চয়ই এমন অনেককে দেখেছেন যারা অন্যদের থেকে বেশি ঠান্ডা বা গরম অনুভব করার কথা বলেন। যেখানে আপনি তার সম্পূর্ণ বিপরীত অনুভব করেন। বাড়িতে বা অফিসে এমন কেউ না কেউ থাকবেন যিনি থার্মোস্ট্যাট সেটিংস, এয়ার কন্ডিশনার খুব কম বা খুব বেশি হওয়া সম্পর্কে অসন্তোষ প্রকাশ করেন।
গড় স্বাভাবিক শরীরের তাপমাত্রা সাধারণত 98.6°F (37°C)। শরীরের তাপমাত্রা বয়স, কার্যকলাপ এবং দিনের সময়ের ওপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হতে পারে। যদিও সব মানুষ উষ্ণ রক্তযুক্ত এবং শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে, তবে কিছু মানুষ আছে যারা অন্যের তুলনায় ঠান্ডা বা গরম অনুভব করতে পারে। এটি বিভিন্ন কারণে হতে পারে। কী কারণে এমন হতে পারে, চলুন জেনে নিই–
বয়স:অল্প বয়স্কদের তুলনায় বয়স্করা শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ কম করতে পারেন। কারণ, বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মেটাবলিজম ধীর হতে থাকে। ধীর বিপাক শরীরের তাপমাত্রা হ্রাস করে, যে কারণে বয়স্ক ব্যক্তিরা হাইপোথার্মিয়ায় বেশি প্রবণ হয় এবং নিজেকে সবসময় আবৃত রাখেন। নড়াচড়া কিংবা চলাফেরা কম করলেও এ সমস্যার জন্ম হতে পারে।
জেন্ডার: পুরুষের তুলনায় নারীর শরীরে পেশির ভর কম থাকে। যে কারণে ত্বকের ছিদ্রগুলো থেকে কম তাপ উৎপন্ন হয়, ফলে তারা পুরুষদের তুলনায় বেশি ঠান্ডা অনুভব করেন। মেনোপজের সময় নারীরা পুরুষের তুলনায় উষ্ণ বোধ করতে পারেন। এটি পেশির ভর তৈরির কারণে নয়, বিশেষজ্ঞের মতে, নির্দিষ্ট হরমোনের পরিবর্তনের কারণেই এমনটা হয়।
শারীরিক আকৃতি: বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরের আকারও একটি কারণ হতে পারে যে কারণে কিছু ব্যক্তি অন্যদের তুলনায় গরম বা ঠান্ডা অনুভব করে। সিডনি ইউনিভার্সিটির ফিজিওলজির গবেষক ওলি জে বলেছেন, শরীর যত বড় হবে, তাপ সিঙ্ক তত বেশি হবে, তাই ঠান্ডা হতে বেশি সময় লাগবে।
ফ্যাট: গবেষণায় দেখা গেছে, যাদের শরীরে বেশি ফ্যাট আছে তারা অন্যদের তুলনায় উষ্ণ বোধ করতে পারে। কারণ অতিরিক্ত ফ্যাট শরীরকে উত্তপ্ত করে, যেহেতু এটি পোশাকের অতিরিক্ত স্তরের মতো কাজ করে। কিছু পরিস্থিতিতে, স্থূল এবং অতিরিক্ত ওজনের ব্যক্তিরা স্বাভাবিক ওজনের ব্যক্তিদের তুলনায় ঠান্ডা অনুভব করতে পারে। এটি সংবহনতন্ত্রের কাজের সঙ্গে সম্পর্কিত। যখন আপনি গরম অনুভব করেন, তখন রক্তনালীগুলো প্রশস্ত হয়। যা রক্তকে তাদের মাধ্যমে প্রবাহিত করতে দেয় এবং ত্বকে পৌঁছাতে দেয়, যেখান থেকে অতিরিক্ত তাপ নির্গত হয়। কিন্তু যেহেতু ত্বকের নিচের ফ্যাট তাপকে আটকে রাখে, তাই এটি ত্বকের পৃষ্ঠকে শীতল করার সময় কোরকে উষ্ণ রাখে। ইউএস আর্মি রিসার্চ ইনস্টিটিউট অফ এনভায়রনমেন্টাল মেডিসিনের গবেষণা ফিজিওলজিস্ট ক্যাথরিন ও’ব্রায়েন এর মতে, এর ফলে স্থূল ব্যক্তিরা অন্যদের তুলনায় ঠান্ডা অনুভব করতে পারে।
মেডিকেল কন্ডিশন: কিছু মেডিকেল কন্ডিশন মানুষের শরীরের তাপমাত্রাকেও প্রভাবিত করতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, হাইপোথাইরয়েডিজম, যাকে আন্ডারঅ্যাক্টিভ থাইরয়েডও বলা হয়। বিপাক, শক্তির মাত্রা ইত্যাদির মতো গুরুত্বপূর্ণ শারীরিক ক্রিয়াকলাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে যে থাইরয়েড গ্রন্থি, সেটি পর্যাপ্ত হরমোন তৈরি করে না করলে ব্যক্তি ঠান্ডা অনুভব করতে পারে। (সূত্র: সময় নিউজ)

ফেসবুকে লাইক দিন