আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ রবিবার, ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ ইং, ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

ধলীগৌরনগর ইউপি সচিবের কান্ড!! জীবিত বৃদ্ধাকে মৃত বানিয়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড বাতিল করলেন

এম এ অন্তর হাওলাদারঃ ভোলার লালমোহনে রওশন আরা বেগম নামের এক বৃদ্ধাকে মৃত দেখিয়ে বয়স্ক ভাতার কার্ড বাতিল করার অপচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি উপজেলার ধলীগৌরনগর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জহর লাল দাস।
জানা যায়, একই ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের চর কালাচাঁদ গ্রামের বাসিন্দা আমির হোসেনর স্ত্রী রওশন আরা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বয়স্ক ভাতা পাচ্ছিলন। ওই ভাতার টাকা নগদ অ্যাকাউন্টে পেতেন তিনি। তবে হঠাৎ করেই ভাতার টাকা আসা বন্ধ হয়ে যায় রওশন আরার। এরপর তিনি বিষয়টি জানতে উপজেলা সমাজ সেবা অফিসে যোগাযোগ করেন। সেখান থেকে রওশন আরাকে জানানো হয়, ২০২২ সালের ২ মার্চ বার্ধক্যজনিত কারণে ৭৮ বছর বয়সে তিনি মারা গেছেন। যা ইউনিয়ন পরিষদের মৃত্যুর নিবন্ধনকরণ রেজিস্টারে ২০২২ সালের ২৮ নং ক্রমিকে নিবন্ধিত রয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এমন একটি সনদ দেওয়ায় ভাতাটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।
অভিযোগ করে রওশন আরা বলেন, অনেকদিন ধরে বস্কভাতা পাইছি। কয় মাস ধরে হেই টাকা পাই না। সমাজ সেবা অফিসে গেলে জানি আমি মইরা গেছি দেহাইয়া সচিব জহর লাল দাস মৃত্যু সনদ দিয়েছেন। এবং আমার বদলে অন্য একজনকে দিছেন। হেইকথায় আমি ভাতা পাই না।
অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করে ধলীগৌরনগর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জহর লাল দাস জানান, প্রথমবারের মতো এমন ভুল করেছি। জানার পরে ওই সনদটি বাতিল করা হয়েছে। সামনের দিকে সর্তকতার সঙ্গে কাজ করবো।
এ ব্যাপারে লালমোহন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মো. মাসুদ বলেন, আমরা বিষয়টির খোঁজ খবর নিয়ে ওই বৃদ্ধার ভাতা পূণরায় চালু করে দিয়েছি। শিগগিরই তিনি তার ভাতার টাকা পাবেন।

ফেসবুকে লাইক দিন