আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে চান? - বিস্তারিত
ঢাকা আজঃ বৃহস্পতিবার, ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ ইং, ১৩ই জিলহজ্জ, ১৪৪৫ হিজরী
সর্বশেষঃ

জমে উঠেছে ভোলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন।।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ-
জমে উঠেছে ভোলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচন। প্রতি বছরের ন্যায় জানুয়ারী মাসের শেষ শনিবার এবার ২৮ জানুয়ারি এবারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দুটি প্যানেলে বিভক্ত হয়ে বঙ্গবন্ধু আইনজী পরিষদ ও সমমনা আইনজীবী পরিষদের ব্যানারে মুলত আওয়ামীলীগ ও বিএনপির ভোট যুদ্ধ ই পরিনত হয় ভোলা বারের এই নির্বাচন। সম্পুর্ন স্বচ্ছ ও গনতান্ত্রিক উপায়ে এ নির্বাচনে সকল সদস্য আবাধ নিরপেক্ষ ভোটের আদর্শ পরিবেশে ভোট প্রয়োগ করে থাকেন। ভোটের আগের ৫ দিন এবং পরের ৩ দিন সকলের সহবস্থানে একটি আনন্দঘ্ন মিলন মেলায় পরিনত হয় ভোলার বিচার প্রাঙ্গন। যদিও চরম প্রতিযোগিতা পূর্ণ নির্বাচনে খুব কম ভোটের ব্যাবধানে জয় পরাজয় নিশ্চিত হয় তারপরেও পরাজয় মেনে নিয়ে বিজয়ীকে তাৎক্ষনিক শুভেচ্ছা জানানোর মত মানুষিকতা কেবল ভোলা আইনজীবী সমিতিতেই দেখা মেলে। ভোলা বারের এই নির্বাচন যেন সকল সভ্য সমাজের সকল মানুষের অর্ন্তঃনিহিত শিক্ষা বহন করে চলছে দীর্ঘদিন থেকে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও সভাপতি পদে এখন পর্যন্ত হাড্ডাহাড্ডি লড়ায়ের আবাস মিললেও ক্যারিশম্যাটিক একাধিকবার নির্বাচিত মিষ্টিভাষী সালাউদ্দিন হাওলাদার কিছুটা নির্বাচনী কৌশলে এগিয়ে থাকলেও ভোলা বারের মিস্টার ভদ্রলোক হিসেবে পরিচিত স্বপন চন্দ্র দে ও ভোটারদের মন জয় করতে প্রতিটি ভোটারের ঘর বাড়ি চষে বেড়াচ্ছেন। তবে ছালাউদ্দিন হাওলাদারের শেষ বিকেলের চমক ও নতুন ভোটারদের সুইং ভোটই বলে দিবে কে হচ্ছেন আগামীর সভাপতি। তবে সাধারন সম্পাদক পদে দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিহাদ ঘোষনা করা এবং ভোলা বারের গত এক বছরে ব্যাপক উন্নয়ন করা আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী মাহাবুবুল হক লিটু বেশ ফুরফুরে অবস্থানে থাকলেও তার সুবিধাজনক অবস্থানে চরম আঘাত করেছেন তরুণ উদীয়মান পরিশ্রমী দক্ষ সংঘঠক ইফতারুল হাসান শরিফ। যে কারনে নির্বাচনের এক দিন আগে জমে উঠেছে ভোলা বারের নির্বাচন। তাই শেষ হাসি হাসার লক্ষে বিএনপি -আওয়ামীলীগের সকল প্রার্থীরাই ঢাকা, মনপুরা, চরফ্যাশনসহ সকল চৌকি বারগুলো চষে বেড়াচ্ছেন। ২৮ জানুয়ারি শনিবার সন্ধ্যার মধ্যেই জানা যাবে কাদের হাতে পরিচালনার দায়িত্ব যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী ভোলার আইনজীবী সমিতির!

ফেসবুকে লাইক দিন