সর্বশেষঃ

২০২২ সালে ভোলায় শ্রেষ্ঠ স্কুল নির্বাচিত নজরুল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় !!

আল মাহামুদ মনির-
২০২২ সালে ভোলা জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ স্কুল নজরুল্লাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্বাচিত হয়েছে। বিদ্যালয়টি ভোলা সদর উপজেলার প্রাণকেন্দ্র উপজেলা অডিটরিয়াম সংলগ্নে অবস্থিত। বিদ্যালয়ের সভাপতি হিসাবে দ্বায়িত্ব পালনরত ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুল ইসলাম ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহিদা সুমনা সার্বক্ষণিক বিদ্যালয়টির ভালো ফলাফল অর্জন, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড,ক্রিড়া কার্যক্রম, বিদ্যালয় স্কাউটিং ও সহ-শিক্ষা কার্যক্রমে অত্যন্ত গুরুত্বের সহকারে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।। গত ২০২২ সালে বিদ্যালয়টি উপজেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ হয়ে জেলা নির্বাচিত হয়।। পরবর্তীতে জেলার পর্যায়ে জেলা প্রশাসন কার্যালয় হতে ভোলা জেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান হিসেবে ৩৯ নং নজরুল্লাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্বাচিত হয়।। শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়ে বাছাই কমিটিতে ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা), সহকারী কমিশনার দীপক কুমার, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, ভোলা।। উক্ত বিদ্যালয়টি আজ পরিদর্শনকালে দেখা যায় অত্যন্ত সুসজ্জিত বিদ্যালয়ের আঙিনা,শিক্ষকদের মিলানায়তন, প্রধান শিক্ষকের অফিস কক্ষ, শেখ রাসেল ও বঙ্গবন্ধু কর্নার, সুসজ্জিত শ্রেণী কক্ষ রয়েছেন। বিদ্যালয় শিক্ষকদের দক্ষতার সহকারে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় দেখা যায়।। এছাড়াও বিদ্যালয়ের প্রতিটি শিক্ষার্থীর ড্রেস কোড ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও ছিল চোখে পড়ার মত। বেশ কয়েকজন অভিভাবক জানান, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহিদা সুমনা দৈর্ঘ্যদিন যাবত অত্যন্ত দক্ষতার সহিত বিদ্যালয় পরিচালনা করে আসছেন, তিনি নিয়মিত বিদ্যালয়ের সহ-শিক্ষা,শিক্ষকদের উপস্থিতি মেন্টেন করা, শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি নিশ্চিত করুন, অসুস্থ শিক্ষার্থীদের বাসায় গিয়ে খোঁজখবর নেওয়া, ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়মুখি করা, এছাড়াও নিয়মিত সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড দিয়ে শিক্ষার্থী ও পুরো বিদ্যালয়কে মনোরঞ্জন করে রাখেন।।

২০২২ শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ ৩৯ নং নজরুল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহিদা সুমনের সাথে উক্ত শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হওয়ার সফলতা নিয়ে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান, এই প্রচেষ্টা শুধু আমার একা নয়, আমার বিদ্যালয়ের প্রতিটি সহকারী শিক্ষকের অবদান রয়েছে।। এছাড়াও সবচেয়ে বেশি অবদান রয়েছে উক্ত বিদ্যালয়ের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুল ইসলাম ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শিরিন সুলতানা মেমদের।। বিদ্যালয়ের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুল ইসলাম স্যার ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা স্যার দুজনই সার্বক্ষণিক আমার স্কুলের প্রতি সুদৃষ্টি রয়েছে এবং আমাকে যথেষ্ট বিদ্যালয়ের কাণ্ডকান্ড পরিচালনায় সহযোগিতা করেন।।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উক্ত বিদ্যালয়ের সভাপতি তৌহিদুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান ৩৯নং নজরুল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ২০২২ সালের শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়ে হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।। বিদ্যালয় এর প্রধান শিক্ষক যথেষ্ট আন্তরিকতার সহিত দায়িত্ব পালন করছেন এবং বিদ্যালয়ের পাঠদানও যথেষ্ট ভালো।।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান ভোলা সদর উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত ৩৯ নং নজরুলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির প্রতি আমাদের যথেষ্ট সুনজর রয়েছে। এছাড়াও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহ প্রতিটি শিক্ষক পাঠদানে যথেষ্ট আন্তরিক।। পাঠদানের জন্য রয়েছে সুন্দর পরিবেশ ব্যবস্থাপনা।।

উল্লেখ্য 39 নং নজরুল্লাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ভোলা সদর উপজেলায় অত্যন্ত সুনামের সহিত পরিচালিত হয় এ পর্যন্ত প্রায় দুই বার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়ে নির্বাচিত হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন