সর্বশেষঃ

ভোলায় জামায়াতের ঢেউটিন বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত!!

এম এ রহিমঃ- গতকাল ভোলায় ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং নিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে ঢেউটিন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমীরে জামায়াত ডাক্তার শফিকুর রহমান বলেন ইসলাম যে সমাজে থাকে, সে সমাজটা আলোকিত হয়, ইসলাম সমাজ, জাতি ও রাষ্ট্রকে আলোকিত করে। যারা সমাজবিরোধী তারা চায় সমাজটি যেন অন্ধকারে থাকে, অন্ধকারে তাদের অন্যায় করতে সুবিধা হয়। আল্লাহ মানুষকে উত্তম বলেছেন, এই জন্য যে-তারা একে অপরের কল্যাণ কামনা করবে একে অপরের বিপদ আপদে সহযোগী হবে।। শফিকুর রহমান আরো বলেন, আমরাও তাই সকল মানুষের শুভাকাঙ্ক্ষী হতে চাই। আমরা চাই মানুষের জন্য কাজ করতে। এই সমাজটা মানুষের। আমরা চাই মানুষের সমাজ মানুষের মতোই হোক। রাষ্ট্রের দায়িত্ব ছিল আপনাদের বিপদে পাশে দাঁড়ানো। কতটুকু দাঁড়িয়েছে জানিনা। জানতেও চাই না। তবে কুরআনের শাসন কায়েম হলে আপনাকে রাষ্ট্রের কাছে চাইতে হবে না। রাষ্ট্রেরই দায়িত্ব হবে আপনাকে পরিচালনা করা। আপনার কাছে রাষ্ট্রের সকল সুবিধা পৌঁছে দেয়া। আমরাও সেই রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখি। যার কারনে আপনারা কেউই আমাদের কাছে ঘূর্ণিঝড় ছিত্রাং এ ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে সাহায্য চান নাই। আমরা নিজ উদ্যোগে আমাদের দায়িত্ব মনে করে আপনাদের কাছে সামান্য উপহার নিয়ে এসেছি। এতে আপনাদের কি উপকার হবে জানিনা। তবে আমরা আল্লাহর দেয়া দায়িত্ব পালন করতে এই উপহার নিয়ে এসেছি। এতে যদি আপনারা খুশি হন এবং আল্লাহ কবুল করেন তাহলেই আমরা মুক্তি পাব। নাজাত পাব। সিত্রাং এর খবর পেয়ে আমরা ব্যথিত হয়েছি। আল্লাহর কাছে দোয়া করেছি। আল্লাহ সবকিছুই করতে পারেন। বাতাস তো আল্লাহর সৃষ্টি, এজন্য সকলেই আল্লাহর কাছে সাহায্য চাইতে হবে। আপনাদের কাছে আসতে আমাদের একটু দেরি হয়েছে। তবে আমরা খোঁজখবর সাথে সাথেই নিয়েছি। আমরা আগে খোঁজখবর নিয়েছি আমাদের যে সকল ভাই-বোনরা মারা গিয়েছেন। তাদের কাছে ছুটে গিয়েছি। আগে তাদের জন্য কিছু করার চেষ্টা করেছি। কতটুকু পেরেছি জানিনা। তবে আল্লাহর কাছে দোয়া করেছি। আসুন না আমরা আল্লাহর দিকে একটু ফিরে যাই। এই সমাজ ব্যবস্থাটা আল্লাহর নির্দেশ অনুযায়ী পরিচালিত হলে আপনাকে আর এখানে আসতে হবে না। আমরাও সেটা চাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ভোলা জেলা আমির মাস্টার জাকির হোসাইন এর সভাপতি কে এবং জেলা সেক্রেটারি মাওলানা হারুনুর রশীদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও অঞ্চল পরিচালক অধ্যক্ষ ইজ্জত উল্লাহ, কেন্দ্রীয় সহকারী সেক্রেটারি ও নির্বাহী পরিষদ সদস্য এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন হেলাল, বরিশাল মহানগরী আমীর ও কেন্দ্রীয় কর্ম পরিষদ ও মজলিসে সুরার সদস্য জহির উদ্দিন বাবর, কেন্দ্রীয় মজলিসে সুরার সদস্য ফখরুদ্দিন খান রাজি। বক্তব্য রাখেন, ভোলা জেলা সাবেক আমীর মাওলানা ফজলুল করিম। জেলা নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানে ভোলার ঘূর্ণিঝড় সিত্রাং এ ক্ষতিগ্রস্ত ২৫০টি পরিবারের মধ্যে ঢেউটিন, অসহায় হিন্দু পরিবারের পুরো ঘর তৈরির খরচ ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন