সর্বশেষঃ

অদক্ষ কর্মী দিয়ে চলছে মনপুরা রুটের সি-ট্রাক, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা!

ভোলার খবর ডেস্কঃ-ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলার সাথে যোগাযোগের একমাত্র অবলম্বন নৌ-পথ। এই দ্বীপটিতে প্রায় কয়েক লক্ষ মানুষের বসবাস। ভোলা জেলার যোগাযোগের জন্য সারাদিনে সরকার কর্তৃক পরিচালিত (বিআইডব্লিউটিসি) অধীনস্থ তজমুদ্দিন টু মনপুরা সি-ট্রাক সার্ভিস।। দীর্ঘদিন এ রুটে পরিত্যক্ত সি-ট্রাক সার্ভিস চলে এসেছিল, সংবাদ কর্মীদের লেখালেখি ফলে কয়েক মাস পূর্বে এ রুট একটি নতুন সিট্রাক সার্ভিস যুক্ত করা হয়।। গত কয়েকদিন আগে ভোলার খবরের অনুসন্ধানে দেখা যায় সিট্রাক সার্ভিসটি পরিচালিত হয় দক্ষ কর্মী দ্বারা।। সরাসরি মাঠ পর্যায়ে অনুসন্ধানে এসটি শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সিট্রাক সার্ভিসটিতে সরকার অনুমোদিত দায়িত্বরত ব্যক্তিবর্গ থাকার কথা থাকলেও দায়িত্বরত কোন ব্যক্তি দেখা মিলেনি ভোলার খবর অনুসন্ধানী টিমের সাথে।। ফের অনুসন্ধানী টিম সত্যতা খুঁজতে গত ২২.০৮.২০২২ ইং তারিখে সরোজমিনে গিয়ে তথ্যচিত্রে দেখা যায়, মাঠ পর্যায়ে সি-ট্রাক সার্ভিসটি কোন দক্ষ কর্মী নেই,নামে মাত্র পরিচালিত হয় এবং সকল তথ্য চিত্র ভোলার খবরের গোপন ক্যামেরায় ধারণও করা হয়।। এ ছাড়া ফারহান,আলী, আকতার হোসেন, মিজান হুজুরসহ বেশ যাত্রীগণ অভিযোগ করে বলেন সিট্রাক সার্ভিসের কোন সময় বা সিডুয়েল অর্থাৎ নির্ধারিত সময় ঠিক থাকে না।। সাথে সাথে অনেক বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগ করেন।। তজুমুদ্দিন থেকে হাজির হাট পর্যন্ত ১৮০ টাকা, তজমুদ্দিন থেকে রামনেওয়াজ ঘাট পর্যন্ত ১৫০ টাকা। এছাড়া প্রতিটি মোটরসাইকেল থেকে ২০০ টাকা বা তার ভাড়া গ্রহণ করা হয় এবং মালামাল বহন করা হয় সিট্রাক সার্ভিসটিতে যা সম্পূর্ণ বেআইনি।।

বিষয়টি নিয়ে তজুউদ্দিন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট জানতে চাইলে, তিনি ভোলার খবর কে জানান, আমি অতি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করব, কর্তৃপক্ষকে অবহিত করব। বিষয়টি মনপুরা উপজেলা নির্বাহি অফিসারের(অতিরক্ত দায়িত্ব) নিকট জানতে চাইলে, তিনি ভোলার খবরকে জানান, আমি বিষয়টি নিয়ে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করব।।বিষয়টি নিয়ে মনপুরা হোক পর্যটন কেন্দ্র দাবি বাস্তবায়ন কমিটির সমন্বয়ক ও ভোলা জেলা ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি এডভোকেট নজরুল হক অনু জানিয়েছেন,অদক্ষ কর্মী দ্বারা সিট্রাক সার্ভিস পরিচালিত হলে যে কোন সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা হতে পারে,এর দায় কে নেবে প্রশাসন নাকি বিআইডব্লিউটিসি???

বি.আই.ডব্লিউ.টিসির-এর পরিবহন পরিদর্শক, উপ-পরিচালক,সহকারী পরিচালক,উপ-পরিচালকের বক্তব্য নিয়েও সি-ট্রাক সার্ভিসটির নানা অনিয়ম দুর্নীতি নিয়ে আসছে বিস্তারিত…… (২য় পর্বে)

ফেসবুকে লাইক দিন