মনপুরা পুলিশি তৎপরতায় ফের মাদক কারবারি আটক, ধরাছোঁয়ার বাইরে মূলহোতা।।

মনপুরা পুলিশি তৎপরতায় ফের মাদক কারবারি আটক, ধরাছোঁয়ার বাইরে মূলহোতা।

মোঃ আমিনুল ইসলাম শামীম
বিশেষ প্রতিনিধি #

ভোলা জেলার বিচ্ছিন্ন দ্বীপ মনপুরা উপজেলা সপ্তাহ শেষ হতে না হতেই ফের ৪(চার) কেজি গাজা (মাদক) সহ এক কারবারিকে আটক করেছে মনপুরা উপজেলা পুলিশ প্রশাসন। অদ্য ইং ২৫/০৮/২০২১ খ্রীঃ সকাল ০৪:৪৫ ঘটিকায় অফিসার ইনচার্জ জনাব সাঈদ আহমেদ মনপুরা থানা ভোলা এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও উপস্থিতিতে এসআই (নিঃ) মোঃ লুৎফর রহমান, এসআই (নিরস্ত্র) মোঃ মনির হোসেন, এসআই (নিরস্ত্র) লিটন হালদার ও সংগীয় অফিসার ফোর্স সহ মনপুরা থানাধীন ০১নং মনপুরা ইউনিয়নের ঈশ্বরগঞ্জ ০৭নং ওয়ার্ডের লঞ্চঘাট সংলগ্ন জনৈক মোঃ রাজিবের চায়ের দোকানের সামনে পাকা রাস্তার উপর মাদকদ্রব্য অভিযান পরিচালনা করিয়া মোট ০৪ (চার) কেজি মাদকদ্রব্য গাঁজা সহ আসামী ১৷ মোঃ শাহআলম (৫২), পিতা-মৃত হাজী নায়েব আলী, মাতা-মৃত সাফিয়া খাতুন, সাং-চাঁন্দের চর ০৩নং ওয়ার্ড খলিফা বাড়ী, পোঃ গৌরীপুর, জিংলাতলী ইউপি, থানা-দাউদকান্দি, জেলা-কুমিল্লাকে গ্রেফতার করেন। মাদক মামলা প্রক্রিয়াধীন।

উল্লেখ্য যে, এই মাদক কারবারি দীর্ঘদিন মনপুরা উপজেলার হাজীরহাট ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আসমা চৌধুরী নামক অন্য মাদক কারবারির ও অত্র এলাকার আরেক চিন্হিত মাদক কারবারি মোঃ মিজান, পিং- মৃত রফিজল, সাং- চরফৈজুদ্দীন, ৮নং ওয়ার্ড, মনপুরা, ভোলাদের বাড়ীতে আসা যাওয়া করতেন ও তাদের সাথে মাদকের কারবার করতেন। মাদক কারবারি আসমা চৌধুরী উক্ত শাহেআলমকে স্বামী পরিচয় দিয়ে বাড়ীতে নিয়ে আসতেন। বর্তমানে আসমা চৌধুরী মাদক মামলায় জেল হাজতে আছেন।

মনপুরার নিরীহ লোকজন বিষয়টি নিয়ে খুবই আতংকিত। এর আগে মনপুরাতে এধরনের ঘটনা খুবই কমই হতো। তাই জনসাধারণ বিষয়টিকে মনপুরা উপজেলা পুলিশের সফল অভিযান হিসেবে দেখছেন।।

ফেসবুকে লাইক দিন