সর্বশেষঃ

যে শ্রেণি শিক্ষক সেই শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়ানো যাবে না – শিক্ষা মন্ত্রী !

অনলাইন ডেস্কঃ-শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, কোচিং কিন্তু কিছুটা দরকার হয়। একে তো দেশে-বিদেশে বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা আছে, সেগুলোর জন্য প্রস্তুতি দরকার হয়। আবার আমাদের স্কুলগুলোর শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের সংখ্যা অনেক বেশি। সেক্ষেত্রে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে সমানভাবে নজর দেওয়া একজন শিক্ষকের পক্ষে সম্ভব হয় না। এতে অনেকে কিছুটা পিছিয়ে পড়তে পারে। অনেকের বাড়িতে বাবা-মা কর্মজীবী তারা সময়টা দিতে পারেন না। সেক্ষেত্রে কখনো কখনো কোচিং-এর দরকার হতে পারে। তবে কোনো শিক্ষক নিজের ক্লাসের শিক্ষার্থীকে কোচিংয়ে পড়াতে পারবেন না। শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে বিসিবি কাউন্সিলর কাপ টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্ধোধন শেষে আইন করে কোচিং নিষিদ্ধ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের জন্য বিকল্প হিসেবে আইনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক ব্যবস্থা করার কথা বলেছি। একই সঙ্গে নিজের ক্লাসে না পড়িয়ে নিজের ক্লাসের শিক্ষার্থীকে বাড়িতে কিংবা কোচিং সেন্টারে পড়তে বাধ্য করা এবং এখানে না পড়লে তাকে অকৃতকার্য করিয়ে দেয়া এবং কম নম্বর দেয়া এই বিষয়টি অনৈতিক এবং আইনে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিসিবি পরিচালক আকরাম খাঁন, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ, বিসিবি কাউন্সিলর জাহিদুল ইসলাম রোমান, চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাহাবুদ্দিন অনু ও চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপকমিটির সম্পাদক শেখ মোতালেব।

ফেসবুকে লাইক দিন