পাকিস্তানের জয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে চাকরি হারালেন এক শিক্ষিকা

স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে গত রোববার প্রথমবারের মতো জয়ের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করার সুযোগ পেল পাকিস্তানিরা। এর আগে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ১২ বারের দেখায় একবারও জয়ের মুখ দেখেনি পাকিস্তান। একটিতে ড্র ছাড়া বাকি সবটিতে হেরেছে।
তবে সেই লজ্জার রেকর্ড দুবাইয়ে এবারের টি-টিয়োন্টি বিশ্বকাপে ‘সুদে-আসলে’ শোধ দিলেন বাবার আজমের নেতৃত্বাধীন দল। বিরাট কোহলির দলকে ১০ উইকেটে হারিয়েছেন বাবর-রিজওয়ানের জুটি। এ জয়ে বাঁধভাঙা উল্লাসে ফেটেছে গোটা পাকিস্তান। তবে পাকিস্তানের জয়ে উল্লাস করতে গিয়ে বিপদে পড়েছেন ভারতীয় এক শিক্ষিকা। চাকরিটাই খোয়ালেন তিনি। তার নাম – নাফিসা আতারির, রাজস্থানের উদয়পুরের নিরজা মোদি বিদ্যালয়ে কোমলমতিদের পড়াতেন তিনি। ভারতীয় এই শিক্ষিকা পাকিস্তান ক্রিকেটপ্রীতি আড়ালে থাকলেও চলত বা ব্যক্তিগতভাবে উদযাপনেও বিপদে পড়তেন না।
কিন্তু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাকিস্তানের জয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে নিজের সর্বনাশ ডেকে আনলেন। পাকিস্তান ভারতকে হারানোর পর নাফিসা বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের ব্যাটিংয়ের ছবি দেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। আর ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমরাই জিতেছি।’ নাফিসার সেই স্ট্যাটাসে তার বিদ্যালয়ের এক ছাত্রের অভিভাবক মন্তব্যের ঘরের জিজ্ঞেস করেন, আপনি ভারতীয় হয়েও পাকিস্তানের সমর্থন করেন? নাফিসা জবাবে লেখেন, জি, আমি পাকিস্তান দলের সমর্থক। এর অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই নাফিসার স্ট্যাটাসের স্ক্রিনশট দ্রুত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে নাফিসার স্কুল বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষেরও নজরে আসে । পরদিন (সোমবার) বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এক বিজ্ঞপ্তিতে নাফিসাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়ে দেয়। চাকরি হারিয়ে নাফিসা দাবি করেন, তিনি একজন দেশপ্রেমিক। কখনই তিনি পাকিস্তানের সমর্থন করেন না। গোটা বিষয়টি ছিল মজার ছলে।
কিন্তু নাফিসার সে দাবি কানে তোলেনি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বরখাস্তের নির্দেশনাতেই অটল থাকেন তারা।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

ফেসবুকে লাইক দিন